সম্পূর্ণ ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করা | Best In 2022

সম্পূর্ণ ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করা ।

সম্পূর্ণ ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করা :- বর্তমান যুগে কোন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার তেমন কোনো খরচ এর বিষয় নয় । যেমন করে আমরা একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারে সেরকম ভাবেই আমরা একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারি । শুধু আমাদের প্রয়োজন হবে একটি জিমেইল একাউন্টের এবং রিচার্জ করার । কিন্তু আপনি যদি চান ভালো মানের একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন তাহলে আপনি কিছু টাকার বিনিময় ডোমেইন-হোষ্টিং ক্রয় করে নিজের জন্য একটি ভালো মানের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন ।

তাহলে চলুন এখন জানা যাক কিভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় ।

সবার প্রথমে আমি বলব টাকা দিয়ে কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন ডোমেইন-হোষ্টিং ক্রয় করে । আপনি যদি সচরাচর ব্যবহারের জন্য বা ব্লগিং করার জন্য ওয়েবসাইট গুলো তৈরি করতে চান তাহলে আপনি শুধুমাত্র ডোমেইন হোস্টিং এর টাকা দিয়ে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন ।

একটি ডোমেইন এর দাম সর্বোচ্চ 90 থেকে 1000 টাকার মধ্যেই ডোমেইনগুলো পাওয়া যায় । এগুলো হচ্ছে সাধারন ডোমেইন । কিন্তু আপনি যদি ভিআইপি কোন ডোমেইন ক্রয় করতে চান তাহলে আপনাকে আরও অনেক বেশি টাকা খরচ করতে হতে পারে কিন্তু আমরা যেহেতু কম খরচের ভিতর একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে যাচ্ছি তাহলে আমরা 90 টাকাতে একটি ডোমেইন ক্রয় করতে পারব । এরপর একটি হোস্টিং এর প্রয়োজন হবে একটি হোস্টিং ক্রয় করার জন্য আপনাকে সর্বোচ্চ 900 টাকা খরচ করতে হবে এক বছরের জন্য ।

ডোমেইন কি :-

ডোমেইন হলো সাধারণত আমাদের যেরকম প্রত্যেকটা মানুষের আলাদা আলাদা নাম থাকে । সেরকম একটি নাম । ইন্টারনেটের মধ্যে সকল ওয়েবসাইট এর আলাদা আলাদা নাম থাকে মানুষের জন্য । যাতে করে কোনো ব্যক্তি যদি সেই নামটি লেখি ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে তাহলে সে সঠিক ওয়েবসাইটে গিয়ে পৌঁছে যায় ।

যেমন ধরে নিন আপনি ফেসবুক এর মধ্যে প্রবেশ করতে চাচ্ছেন । আপনি যদি সার্চ ইঞ্জিন থেকে ফেসবুকের মধ্যে প্রবেশ করতে চান তাহলে কিন্তু আপনাকে WWW।Facebook।com লিখে সার্চ ইঞ্জিনের মধ্যে অনুসন্ধান করতে হবে ।

আশা করি আপনি বুঝতে পেরেছেন ডোমেইন মানে কি । এক কথায় বলতে গেলে ডোমেইন এর অর্থ হল অনলাইন জগতে কোন একটি ওয়েবসাইটের নাম ।

হোস্টিং কি :-

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য শুধুমাত্র ডোমেইন হলেই হয় না ডোমেইন হলো শুধু একটি নাম । কিন্তু সেই ডোমেইন এর মধ্যে আপনার ওয়েবসাইটটি রাখার জন্য একটি জায়গার প্রয়োজন বা একটি স্টোরেজের প্রয়োজন । যেমনটা করে আমরা কোন স্মার্টফোন দিয়ে কোন একটি পিকচার তুলি । বা যখন আমরা স্মার্টফোনের মধ্যে কোন একটি সফটওয়্যার ইন্সটল করি সেই সফটওয়্যার ডাউনলোড করার জন্য আমাদের যেমন একটি স্পেস বা স্টোরেজের প্রয়োজন হয় সেরকম ওয়েবসাইটকে অনলাইনের মধ্যে সব সময় লাইভ রাখার জন্য আমাদের হোস্টিং এর প্রয়োজন হয় ।

অর্থাৎ ওয়েবসাইটের মধ্যে আপনার চেয়ে সকল কনটেন্ট বা সকল ইমেজগুলো থাকবে যেসকল ডিজাইনগুলো থাকবে এবং যে সকল কোড গুলো থাকবে সে সকল কিছু রাখার জন্য আপনাকে একটি স্টোরেজের প্রয়োজন হবে ।এখন আপনার কাছে একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং রয়েছে তাহলে আপনি সম্পন্ন ফ্রিতে কিভাবে ওয়েবসাইটটি ভালো মানের ডিজাইন দিতে পারেন । যখন আপনার কাছে ডোমেইন এবং হোস্টিং থাকবে তখন আপনি হোস্টিং এর থেকে সিপ্যানেল এক্সেস দেয়া হবে সেখান থেকে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে একটি ওয়েবসাইট খুব সহজেই তৈরি করে নিতে পারেন ।

WordPress :- এর মাধ্যমে কিন্তু আপনি অনেক সহজেই একটি ওয়েবসাইট অনেক দ্রুততার সাথে তৈরী করতে পারবেন এবং আপনার পছন্দ অনুযায়ী আপনার ওয়েবসাইটটি কে ডিজাইন করতে পারবেন । কোন ধরনের দক্ষতা ছাড়াই । ওয়ার্ডপ্রেস এর মধ্যে অনেক ধরনের ফ্রিতে থিম পাওয়া যায় সেসকল থিম গুলো ব্যাবহার করে আপনি অনেক সহজেই কিন্তু অনেক সুন্দর একটি ওয়েবসাইটের ডিজাইন করতে পারে ।

এবং আপনি আপনার ইচ্ছামত সে ওয়েবসাইটের মধ্যে ব্লগিং করতে পারেন । একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট তৈরি করতে হালকা কিছু খরচ আপনাকে করতে হবে । কিছু অল্প পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে আপনি কিন্তু একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন । আপনি যদি চান সেই ওয়েবসাইট থেকে উপার্জন করতেন তাহলে কিন্তু আপনি কিছু স্টেপ ফলো করেই এবং কিছু নীতিমালা সঠিকভাবে অনুসরণ করে আপনি অনেক সহজে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন । অর্থ উপার্জনে অনেক মাধ্যম রয়েছে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে । আপনি চাইলে নিজে ব্লগিং করে এই ওয়েবসাইট থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারেন গুগল এডসেন্স অ্যাপ্রভাল নিয়ে ।

সম্পূর্ণ ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করা  :-

আপনি যখন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আপনি কোন অর্থ বিনিয়োগ করতে পারবেন না একটি ওয়েবসাইটের জন্য । তাহলে আপনার জন্য অন্য একটি পদ্ধতি রয়েছে যেটার মাধ্যমে আপনি নিজের মতো করে সুন্দরভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন । সেটা করতে পারেন আপনি ব্লগার এর মাধ্যমে । ব্লগার এটি হলো গুগলের একটি সার্ভিস । এর জন্য আপনাকে অবশ্যই একটি ইমেইল তৈরি করে নিতে হবে । আপনার যদি একটি ইমেইল একাউন্ট তৈরী করা থাকে তাহলে কিন্তু আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন সম্পূর্ণভাবে ফ্রিতে ।

গুগল সার্চ ইঞ্জিনে কি আপনি যখন সার্চ করবেন https://www।blogger।com/ তখন আপনাকে একটি ওয়েবসাইটে নিয়ে যাবে সে যাওয়ার পরে কিছু স্টেপ সহজে ফলো করে আপনি কিন্তু একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন । আপনি চাইলে আপনার নিজের মতো করে কিছু ডিজাইন ও সেখানে ইমপ্লিমেন্ট করতে পারেন । তার জন্য আপনাকে কিছু কোড জানা থাকতে হবে । আর যদি আপনার কোন ধরনের কোড জানা না থাকে তাহলেও কোন সমস্যা নেই ।

বর্তমানে অনলাইনে যুগে অনেক কিছু ফ্রিতে পাওয়া যায় । শুধুমাত্র প্রয়োজন একটু রিসার্চ এর । তাই আমি প্রথমে বলেছি আপনি যদি ফ্রিতে ওয়েবসাইটগুলো তৈরি করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই একটু বেশি রিসার্চ করতে হবে একটু টাইম দিতে হবে অনলাইনের মধ্যে । আপনার যে ধরনের ওয়েবসাইট এর প্রয়োজন আপনি একটু টাইম দিয়ে যখন খুঁজবেন আপনার কি ধরনের ওয়েবসাইটের প্রয়োজন বা আপনি যদি গুগলের মধ্যে সার্চ লেখেন blogger template । আপনি অনেক পরিমাণে ফ্রিতে অনেক টেমপ্লেট পেয়ে যাবেন ।

যেগুলো কিভাবে ব্যবহার করতে হয় আপনি ইউটিউব এর মধ্যে একটু সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন কীভাবে সেগুলো কাস্টমাইজেশন করতে হয় । এই কারণে আমি বলেছি দিতে ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য বা আপনি টাকা দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই টাইম দিতে হবে । আপনি টাইম এবং ধৈর্য সহকারে নির্বাচন করে নিবেন আপনার যেই টেমপ্লেটটি প্রয়োজন ।

তখন আপনি যে টেমপ্লেটটি সিলেট করে নিয়েছেন সেই টেমপ্লেটটি ব্লগার এর মধ্যে সঠিকভাবে ইমপ্লিমেন্ট করে একটি ওয়েবসাইট পরিপূর্ণভাবে তৈরি করে নিতে পারবেন । কিন্তু আপনি যখন একটি ব্লগার ওয়েবসাইট তৈরি করবেন তখন আপনার ডোমেইন এর পরে blogger এটা থেকে যাবে । হ্যাঁ কিন্তু আপনি নিজের মতো করে এর আগে দিয়ে কিছু শব্দ যোগ করতে পারবেন নিজের পছন্দ অনুযায়ী একটি নাম যোগ করে নেবেন সেটাই হবে আপনার ডোমেইন নেম ওয়েবসাইটের ।

ব্লগার ওয়েবসাইটটিও আপনি অর্থ উপার্জন করতে পারবেন আপনি যদি সঠিকভাবে গুগল এডসেন্স এর প্রাইভেসি পলিসি গুলো মেনে আর্টিকেলগুলো তৈরি করেন তাহলে কিন্তু আপনি অনেক সহজেই গুগল এডসেন্স থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন ।তাই আপনি যখন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন সেটা যদি আপনি অর্থ উপার্জনের জন্য তৈরি করেন তাহলে অবশ্যই অ্যাডসেন্সে প্রাইভেসি পলিসি সবগুলো দেখে নিবেন কী ধরনের ওয়েবসাইট এর মধ্যে অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভাল দেয় ।

আর যদি আপনি চান গুগল এডসেন্স থেকে ইনকাম না করে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম করবেন সেটাও আপনি করতে পারেন । অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর অর্থ হলো অন্যের পণ্যকে আপনার ওয়েবসাইট দ্বারা প্রমোশন করে বিক্রি করা ।যখন আপনি অন্যের পূর্ণ কে আপনার ওয়েবসাইটের প্রমোশন দ্বারা বিক্রি করবেন তখন সেই পণ্য থেকে আপনি কিছু পারসেন্টেজ পাবেন । সেটাই হচ্ছে এফিলিয়েট । এবার সেটা পূর্ণ হোক বা সার্ভিসিং যেকোনটাই হতে পারে ।

আমাদের শেষ কথা :-

আমরা আপনাদেরকে এখানে বললাম সম্পূর্ণ ফ্রিতে কিভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় এবং কিছু অর্থের বিনিময়ে ও কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় আপনি যখন সঠিকভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন সেই ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে অর্থ উপার্জন করা যায় সে সম্পর্কে আমরা কিছু ধারনা আপনাদেরকে দিয়েছি ।আপনারা যদি ব্লগ টি সম্পূর্ণভাবে পড়েন তাহলে বুঝতে পারবেন আমরা কি কি বিষয় বস্তু আপনাদের কে বোঝানোর চেষ্টা করেছি এবং আপনি কিভাবে একটি ওয়েবসাইট সম্পূর্ণরূপে নিজের মতো করে তৈরি করতে পারেন । ধন্যবাদ সবাইকে ।

3 thoughts on “সম্পূর্ণ ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করা | Best In 2022

Leave a Reply

Your email address will not be published.