ইউটিউব থেকে আয় করার ৫টি উপায় জানুন | Best in 2022

ইউটিউব থেকে আয় করার ৫টি উপায় জানুন

ইউটিউব থেকে আয় করার ৫টি উপায় জানুন . পৃথিবীর ইতিহাসের জনপ্রিয় একটি প্লাটফর্ম হলো ইউটিউব। অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে ইউটিউব থেকে আসলেই কি টাকা আয় করা যায়? যদি টাকা আয় করাই যায় তাহলে কিভাবে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা যায়? আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার ৫টি জনপ্রিয় এবং গুরুত্বপূর্ণ উপায় নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করবো।  ইউটিউব থেকে টাকা আয় করতে হলে আমাদের প্রথমে জানতে হবে ইউটিউব কি বা কাকে বলে?

এই আর্টিকেল থেকে আপরা যা শিখতে পারবো তা সংক্ষেপে জেনে নিন-
১. ইউটিউব কাকে বলে
২. ইউটিউবের আয় কেমন
২. ইউটিউব থেকে আয় করবো কিভাবে
৩. ইউটিউব অ্যাডসেন্স থেকে আয়
৪. নিজের প্রডাক্ট বিক্রি করে আয়
৫. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয়
৬. প্রডাক্ট রিভিও করে ইউটিউব থেকে টাকা আয়
৭. ইউটিউব স্পন্সরশীপ করে আয়

ইউটিউব কাকে বলে?:-

ইউটিউব হলো একটি ভিডিও মার্কেটিং এর জনপ্রিয় একটি প্লাটফর্ম। সহজ ভাষাই যদি বলা যায় তাহলে ইউটিউব হলো গুগলের পর বিশ্বের দ্বিতয়ি সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন সার্চ ইঞ্জিন যার মাধ্যমে ভিডিওর মাধ্যমে মানুষেরা নিজেদের সমস্যার সমাধান পেয়ে থাকে। গুগলের পর সবচেয়ে বেশি ভিজিটর পাওয়া যায় যেই সাইটটিতে সেটি হলো ইউটিউব। আশা করি ইউটিউব সম্পর্কে কিছুটা হলেও ধারণা পেয়েছেন।

ইউটিউবের আয় কেমন :-

যদি আপনার ভালো একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকে এবং সেখানে যদি নিয়োমিত পোস্ট করতে পারেন তাহলে এই চ্যানেলটি থেকে প্রিতি মাসে ১ লাখ টাকাও আয় করতে পারেন। আপনি যদি কাউকে পশ্ন করে যে ইউটিউবের আয় কেমন সে তার সঠিক উত্তর দিতে পারবে না। শুধু সেই না কেউ এর সঠিক উত্তর দিতে পারবে না।

এর মূল কারণ হলো ইউটিউবে কত টাকা আয় করা যাবে এটা নির্ভর করে আপনার কাজের উপরে অথবা আপনার চ্যানেলের উপরে। আর আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ইউটিউবে প্রতি ১ হাজার ভিউতে ২-৫ ডলার পাওয়া যায়। এটা নির্ভর করে আপনার ভিডিও এর ভিউয়ের উপর। সুতরাং আপনার ভিডিওতে প্রতিদিন ১০ হাজার ভিউ আসে তাহলে আপনি প্রতিদিন ১০-২০ ডলার আয় করতে পারবেন। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে এর কম অথবা এর বেশিও হতে পারে।

ইউটিউব থেকে আয় করবো কিভাবে :-

আপনি যদি ইউটিউব থেকে আয় করতে চান তাহলে আপনাকে প্রথমে ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে এবং সেখানে নিয়োমিত প্রতিদিন ১টি করে ভিডিও আপলোড করতে হবে। আপনার যদি সামান্য বুদ্ধি থাকে তাহলে এই চ্যানেল থেকে অল্প পরিশ্রম করে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারবেন। এখানে আয় করতে হলে বিভিন্ন মাধ্যম এবং উপায় রয়েছে। যেই উপায় গুলো নিয়েই আজকে আলোচনা করা হবে। তাহলে বেশি কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক আমাদের আজকের আর্টিকেলের মূল আলোচনায়

ইউটিউব থেকে আয় করার ৫টি উপায় জানুন :-

নিচে ইউটিউব থেকে আয় করার সহজ এবং জনপ্রিয় কয়েকটি মাধ্যম ও উপায় নিয়ে আলোচনা করা হলো। আশা করি আপনারা সকলেই উপকৃত হবে-

১. ইউটিউব অ্যাডসেন্স থেকে টাকা আয় :- 

অ্যাডসেন্স হলো গুগলের বিজ্ঞাপন কম্পানি। যারা ইউটিউব মার্কেটিং এর কাজ করে থাকে তাদের আয়ের একমাত্র উৎসহ হলো ইউটিউব অ্যাডসেন্স থেকে আয়।
ইউটিউবে কাজ করতে হলে আপনাকে ইউটিউবের চাহিদা পূরণ করতে হবে। যেই চাহিদা গুলো পূরণ হয়ে গেছে ইউটিউব আপনার চ্যানেলকে অ্যাডসেন্স এপ্রুভাল করে। চাহিদা গুলো হলো ১ হাজার সাবস্ক্রাইবার এবং ৪ হাজার ঘন্ট ওয়াচ টাইম।

এই চাহিদা গুলো পূরণ হয়ে গেছে যখন আপনার চ্যানেল অ্যাডসেন্স এপ্রুভাল হবে তখন আপনার চ্যানেলের ভিডিওতে বিভিন্ন ধরনের অ্যাড শো করে। আর এই বিজ্ঞাপনের কিছু অংশ গুগল তাদের কাছে রাখে আর বেশিরভাগ অংশই চ্যানেলের প্রকৃত মালিকের কাছে দিয়ে দেই। আর হে আপনি চাইলে ইউটিউবে এই অ্যাডসেন্স এর কাজ করে প্রতি মানে অনকে টাকা আয় করতে পারবেন। ইউটিউবে আয় করার এটি একটি সহজ উপায়।

২. নিজের প্রডাক্ট বিক্রি করে আয় :- 

ইউটিউবে আয় করার সহজ একটি মাধ্যম হলো নিজের প্রডাক্ট বিক্রি করে আয়। আপনার নিজের বানানো পণ্য যদি থাকে তাহলে সেটি ইউটিউবের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারবেন। এখানে নিজের বানানো পণ্য বলতে বোঝানো হয়েছে পোশাক, খাবার, ইত্যাদি পণ্য বিক্রি করতে পারেন। অথবা এই পণ্যগুলো বানিয়ে ভিডিও করে চ্যানেলে আপলোড করে মার্কেটিং করতে পারেন। এভাবে আপনি আপনার চ্যানেল দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। বর্তমানে লকডাউনে এই পদ্ধতিটি অনেক জনপ্রিয়। কারণ অনেককেই বর্তমানে ঘরে বসেই সকল কিছু কেনাকাটা করছে। তাই আপনি চাইলে পদ্ধতিটি প্রয়োগ করে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করতে পারেন।

৩. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় :- 

ইউটিউবে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করা অনেক সহজ একটি উপায়। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হলো বড় কোনো কম্পানির পণ্য আপনার মাধ্যমে বিক্রি কর দেওয়াকে বোঝানো হয়। আপনি আপনার চ্যানেলে যদি বড় কোনো কম্পানির একটি পণ্য বিক্রি করে দিতে পারেন তাহলে আপনি ১০% কমিশন পাবেন। ১ হাজার টাকার যদি ১০টি পণ্য আপনি বিক্রি করে দিতে পারেন তাহলে সেখান থেকে আপনি ১ হাজার টাকা কমিশন পাবেন। আর এই প্রক্রিয়াকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বলা হয়। ইউটিউব চ্যানেলে এভাবে আয় করলে অনকে টাকা আয় করা যায়। এটি সাধারণত ছাত্রছাত্রীদের জন্য অনকে ভালো একটি কাজ। পড়াশোনার পাশাপাশি টাকা আয় করার সেরা একটি পদ্ধতি।

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আয় করার ৯টি উপায় ।

৪. প্রডাক্ট রিভিও করে ইউটিউব থেকে টাকা আয় :- 

প্রডাক্ট রিভিও করে দুইটি ভাবে ইউটিউবে টাকা আয় করা যায়। মনে করুন রিয়েলমি কম্পানির ফোন নতুন বাজারে এসেছে। আর আপনি রিয়েলমি ফোনটির একটি রিভিউ করে আপনার চ্যানেলে অ্যাপিলিয়েট লিংক দিতে পারেন। ফলে আপনার ভিউয়ারসরা এই ফোনটি কিনতে উদ্ভূদ্ধ হবে। আর যদি অ্যাপিলিয়েট লিংকে ক্লিক করে ফোনটি কিনে তাহলে আপনি সেখানে থেকে ভালো একটি কমিশন পাবেন। এছাড়াও আপনি এমন অনেক কম্পানি রয়েছে তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন কম্পানির পণ্যের রিভিউ দেওয়ার জন্য। এতে করে তারা আপনাকে রিভিউ দেওয়ার জন্য প্রতিমানে টাকা পেমেন্ট করবে।

৫. ইউটিউব স্পন্সরশীপ করে আয় :- 

ইউটিউবে টাকা আয় করার অনেক জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হলো স্পন্সরশীপ করে টাকা আয়। আপনি আপনার চ্যানেলে বিভিন্ন বড় বড় কম্পানির সাথে স্পন্সরশীপ করতে পারেন। এখন অনেকেই বলতে পারেন যে স্পন্সরশীপ জিনিসটি কি?

স্পন্সরশীপ কাকে বলে? :-  স্পন্সরশীপ হলো এমন একটি প্রকৃয়া যেখানে আপনি আপনার চ্যানেলে বড় বড় কম্পানির পণ্য রিভিউ দেওয়ার মাধ্যমে স্পন্সরশীপ করে থাকবেন। আর রিভিউ দেওয়া পণ্য যদি আপনার মাধ্যমে বিক্রি হয় তাহলে আপনাকে সেই কম্পানি কমিশন দিবে। আর এই কাজ পারমালেন্ট করাকেই ওই কম্পানির সাথে স্পন্সরশীপ বোঝায়। আশা করি স্পন্সরশীপ কি সেই বিষয়ে ধারণা পেয়েছেন।
আপনার ইউটিউব চ্যানেলে এই স্পন্সরশীপ করে টাকা আয় করতে পারবেন। এটি করার জন্য আপনাকে কোথাও যেতে হবে না। বড় বড় কম্পানি গুলো তারা নিজেরাই আপনার সাথে যোগযোগ করবে। এভাবে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা অনেক সহজ একটি পদ্ধতি।

আমাদের শেষ কথা :-

এই হলো আমাদের আমাদের আজকের প্রতিবেদন। আশা করি যারা ইউটিউব থেকে কেমন টাকা আয় হয় অথবা কিভাবে টাকা আয় করতে পারি সেই বিষয় সম্পর্কে জানার চেষ্টা করছিলেন তারা যথেষ্ট পরিমাণে ধারণা পেয়েছেন। এই বিষয়ে আরো বিস্তারিত কোনো তথ্য জানার থাকলে ইউটিউবেই অনেক ধরনে ভিডিও পাওয়া যায়। আপনি চাইলে সেই ভিডিও গুলো দেখে শিখে নিতে পারেন।
আপনার মূল্যবান সময় ব্যায় করে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ার জন্য আপনাকে অসখ্য ধন্যবাদ। আর নিয়োমিত এমন গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল পেতে হলে আমাদের এই ওয়েব সাইটের সাথেই সব সময় থাকবেন।

One thought on “ইউটিউব থেকে আয় করার ৫টি উপায় জানুন | Best in 2022

Leave a Reply

Your email address will not be published.