কিভাবে অন পেজ ও অফ পেজ এসইও করা হয় ? Best in 2022

কিভাবে অন পেজ ও অফ পেজ এসইও করা হয় ?

কিভাবে অন পেজ ও অফ পেজ এসইও করা হয় ? । SEO এর অর্থ হলো ( Search Engine Optimisation ) অর্থাৎ যেকোন সার্চ ইঞ্জিনের মধ্যে নিজের ওয়েবসাইট বা লেখা আর্টিকেল সার্চ ইঞ্জিনের মধ্যে কোন একজন ইউজার যদি তার কাঙ্খিত পণ্য বা বিষয়বস্তু নিয়ে সার্চ করে সেটা যদি আপনার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল এর কিওয়ার্ড সাথে মিল হয় তাহলে সার্চ রেজাল্ট আপনার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল কে সবার উপরে প্রদর্শন করবে যদি সঠিকভাবে এসইও করা হয় ।

এসইও সাধারনত দুই ধরনের হয়ে থাকে ওয়েবসাইটের জন্য :-

অন পেজ অফ ।

অফ পেজ এসইও ।

অফ পেজ এসইও :-

আমি আপনাদেরকে এখন জানা off page SEO এর মেইন কনসেপ্ট গুলো কি কি সে সম্পর্কে । বর্তমান সময় এখন আমরা গুগলকে নিয়ে কাজ করে থাকি । কারণ বর্তমানে গুগলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সার্চ হয়ে থাকে ।

এবং সকলেই নিজস্ব ওয়েবসাইট গুলো এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো ওকে গুগল এর মধ্যে Rank করিয়ে তাদের ব্যবসা অনেক দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে । এবং ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো কে গুগলের মধ্যে Rank করানোর জন্য এসইও অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে । SEO এর একটি পার্টি হল অফ পেজ এসইও ।

অফ পেজ এসইও বলতে বুঝায় আপনার ওয়েবসাইটের ভাইরে যে ধরনের কাজগুলো করা হয় সেগুলো কে বলা হয় অফ পেজ এসইও । অর্থাৎ আপনি যখন একটি ওয়েবসাইটের অভ্যান্তরে কাজ অসম্পূর্ণ করে ওয়েবসাইটকে Rank করানোর জন্য যেসকল কাজগুলো ওয়েবসাইটের বাইরে করা হয় সেগুলি হল অফ পেজ এসইও ।

অফ পেজ এসইও এর মূল দুটি ধাপ হলো :-

1 ) ডু ফলো ব্যাকলিংক । 

2) নো ফলো ব্যাকলিংক ।

ডু ফলো ব্যাকলিংক :-

dofollow backlink হলো যখন কোন একটি ওয়েবসাইট নতুনভাবে তৈরি হয় সে ওয়েবসাইটের মধ্যে যে সকল পোষ্ট গুলো হয় সে সকল পোস্টগুলোকে করানোর জন্য অন্য একটি ওয়েবসাইট অথরিটি থাকে সেই ওয়েবসাইট থেকে এই ওয়েবসাইটটি কে গুগলের কাছে রেফার করা ।

অর্থাৎ আপনার যে ওয়েবসাইটে রয়েছে সে ওয়েবসাইট থেকে ভালো কোন ওয়েবসাইট থেকে আপনাকে রেফার করে গুগলের কাছে যে এই ওয়েবসাইটটি কোন স্পামিং ওয়েবসাইট নয় । অর্থাৎ কোন একটি ওয়েবসাইট যদি আপনার ওয়েবসাইটকে রেফার করে তাহলে গুগোল মনে করে সে ওয়েবসাইটটি অবশ্যই ভালো একটি ওয়েবসাইট তখন দেখা যায় আপনার থেকে কম রেফারকৃত ওয়েবসাইট থেকে যে পোস্টটি হয়েছে আপনার পোস্ট রিলেটেড সেগুলিকে বিট করে আপনি উপরের দিকে আসতে পারবেন ।

এতে করে আপনার ওয়েবসাইটের ব্যাংকিং সেক্টর টা অনেক বেশি এগিয়ে যাবে । এতে করে আপনার ওয়েবসাইটটি অনেক দ্রুত রেংক হয়ে যাবে ।

নো ফলো ব্যাকলিংক :-

dofollow backlink যেমন সরাসরি কোনো একটি ওয়েবসাইটকে গুগলের কাছে রেফার করে এই ওয়েবসাইটটি কোন প্রকার স্পামিং করতে আসেনি সে ঐসকল ওয়েবসাইটকে সরাসরি রেফার করে থাকে ।কিন্তু nofollow backlinks গুলো সরাসরি গুগলের কাছে রেফার করে থাকে না সেখানে থেকে শুধুমাত্র একটি লিঙ্ক পাওয়া যায় অবশ্য এমন বলাটা ভুল হবে যে nofollow backlinks কোন উপকারে আসে না ।

কেননা কোন একটি ওয়েবসাইটের যখন ব্যাকলিংক গুলো তৈরি হবে তখন দুই ধরনের ব্যাকলিংক সমান থাকা অনেক বেশি জরুরী । তাহলে কিন্তু গুগোল মনে করে এই ধরনের ব্যাক লিঙ্ক গুলো অর্গানিক ভাবে হয়েছে ।একদিনের মধ্যে অনেকগুলো ব্যাকলিংক তৈরি করবেন না ওয়েবসাইটকে রং করানোর জন্য অবশ্যই আপনাকে ধীরে ধীরে কাজগুলো করতে হবে এ সকল কাজেই অফ পেজ এসইও এর ভিতরে পড়ে । এবং এই সকল কাজেই আপনার ওয়েবসাইটের বাইরে করা হয় আপনার ওয়েবসাইটের মধ্যে কোন ধরনের পরিবর্তন করা হয় না ।

অন পেজ অফ :-

এটির মধ্যে যে সকল কাজগুলো করা হয় তা সম্পূর্ণভাবে আপনার ওয়েবসাইটের অভ্যান্তরে করা হয় ।আপনার ওয়েবসাইটের মধ্যে যে আর্টিকেলটি থাকে সে আর্টিকেলটি কিভাবে কাজ করবে এবং কিভাবে আর্টিকেলটি এসইও করা যায় এ সমস্ত কাজ অনপেজ এসইও তে করা হয় ।অনপেজ এসইও করার ধরন হলো । সর্বপ্রথম আপনি যে কি-ওয়ার্ড নিয়ে আর্টিকেলটি তৈরি করবেন সেই কী-ওয়ার্ডটি আপনার টাইটেল এর মধ্যে অবশ্যই রাখতে হবে ।

আপনার আর্টিকেলের যে লিঙ্কটি হবে সেই লিঙ্ক এর মধ্যেও কিন্তু আপনার আর্টিকেল এর যে কিওয়ার্ডটি হবে সেই কী-ওয়ার্ডটি রাখতে হবে ।আপনার আর্টিকেল এর যে টাইটেলটি ব্যবহার করবেন সে টাইটেল এর মধ্যে পাওয়ারফুল কিছু শব্দ ব্যবহার করতে হবে যেমন (Best ) এবং একটি সংখ্যা ব্যবহার করতে হবে যেমন হলো ( ।।।। Best article in 2022 )এমন কিছু ওয়ার্ড আপনার আর্টিকেল এর টাইটেল এর মধ্যে ব্যবহার করলে টাইটেলটি সম্পূর্ণরূপে এসইও এবং eye-catching হয় ।

আপনার আর্টিকেল এর মধ্যে কিছু ইন্টারনাল এবং এক্সটারনাল লিঙ্ক করতে হবে । এটি অনপেজ এসইও এর ক্ষেত্রে অনেক বেশি কাজে দেয় । আপনার কিওয়ার্ডটির সঠিকভাবে ডিসট্রিবিউশন করতে হবে আপনার আর্টিকেল এর মধ্যে ।যখন আপনার আর্টিকেল তৈরি করবেন তখন আপনাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে আর্টিকেলটি আপনি তৈরি করবেন সে আর্টিকেলের সাথে কিন্তু আপনি একটি ইমেজ ও ব্যবহার করতে হবে।

এবং ইমেজ এর মধ্যে আপনাকে অবশ্যই আপনার যেই কী-ওয়ার্ডটি রয়েছে সেই কী-ওয়ার্ডটি দিতে হবে ।আপনার কনটেন্ট গুলোকে টেবিল অফ কনটেন্ট করতে হবে ।আপনার কনটেন্ট গুলো কে সঠিকভাবে হেডিং ব্যবহার করতে হবে এবং সঠিকভাবে লিস্টিং গুলো করতে হবে । কনটেন্ট এর মধ্যে যে সকল লিংকগুলো আপনি দিবেন সে সকল লিংক এর মধ্যে আপনাকে কিন্তু সঠিকভাবে ইমপ্লিমেন্ট করতে হবে ।

আপনি যেই মেটাডেসক্রিপশন ব্যবহার করবেন সেটি অবশ্যই 150 টা অক্ষরের মধ্যে হতে হবে । 150 ওয়ার্ড নয় । এবং এই মেটাডেসক্রিপশন এর মধ্যে আপনার যেই সকল কিওয়ার্ডগুলো থাকবে সকল কিওয়ার্ডগুলো ইম্প্লেমেন্ট করার চেষ্টা করবেন।

আমাদের শেষ কথা :-

আমরা এতটাই যাবৎ আপনাদেরকে অন পেজ এবং অফ পেজ এসইও সম্পর্কে একটি ধারণা দিয়েছি অফ পেজ এসইও গুলো কিভাবে করা হয় সে সম্পর্কে আপনারা ভালোভাবে জ্ঞান অর্জন করেছে । অনপেজ এসইও গুলো কিভাবে করা হয় সে সম্পর্ক কিন্তু আপনারা জ্ঞান লাভ। আপনারা যদি সঠিকভাবে সম্পন্ন ব্লগ টি পড়ে থাকেন । আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন অন পেজ এবং অফ পেজ এসইও গুলো কিভাবে করা হয় ।সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ আজকের জন্য এখানেই বিদায় নিলাম ।

2 thoughts on “কিভাবে অন পেজ ও অফ পেজ এসইও করা হয় ? Best in 2022

Leave a Reply

Your email address will not be published.